Home / আঞ্চলিক / আমি কারবালায় শহীদ হব, আমাকে হাসান হোসেন নিতে আসছে!

আমি কারবালায় শহীদ হব, আমাকে হাসান হোসেন নিতে আসছে!

আমি কারবালায় শহীদ হব। আমাকে হাসান হোসেন নিতে আসছে। আমাকে তোরা আর বেশি দিন পাবি না। গত কয়েক দিন ধরেই এই কথাগুলো বলত জাজিরা উপজেলার সেনেরচর ইউনিয়নের ছোট কৃষ্ণনগর গ্রামের হালিমা বেগম।

শুক্রবার ভোরে ফজর নামাজ শেষে নিজ ঘরের ভেতর জায়নামাজে বসে গরু কাটা ছুরি দিয়ে নিজের গলা কেটে আত্মহত্যা করেছেন হালিমা বেগম।

নিহত হালিমা বেগম (১৯) ওই গ্রামের কারি মো. মোবারক আলী মোল্যার মেয়ে। তিনি মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার উমেথপুর নুরেল আমিন কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী।

নিহতের মা শুকুরজান বিবি জানান, কয়েক দিন ধরে হালিমা একটু ভারসাম্যহীন। কারো সঙ্গে তেমন কোনো কথা বলে না। ঠিকমতো খাবার খায় না। আবোলতাবোল কথা বলে। ভোরবেলা নামাজ শেষে সে জায়নামাজে বসে থেকেই ঘরে থাকা ছুরি দিয়ে নিজের গলায় আঘাত করে। তার ছোট বোন দেখতে পেয়ে চিৎকার দিলে তার বাবা-মা এসে রক্তাক্ত অবস্থায় হালিমার নিথর দেহ জায়নামাজে পড়ে থাকতে দেখে।

জাজিরা থানার ওসি মো. এনামুল হক জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।

About myadmin

Check Also

ধর্ম ত্যাগ করে বিএনপি নেতার সাবেক স্ত্রীকে বিয়ে, এরপর জানুন !!

হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে নারী কাউন্সিলর প্রায়ত বিএনপি নেতার স্ত্রীকে বিবাহ করেছে ব্যবসায়ী সজল চৌধুরী। …