Home / লাইফস্টাইল / কলার যেসব স্বাস্থ্যগুণ অনেকেরই অজানা

কলার যেসব স্বাস্থ্যগুণ অনেকেরই অজানা

আপনি কি জানেন, কলাকে ওজন কমাতে সাহায্য করার ক্ষেত্রে অন্যতম সুপারফুড হিসেবে বিবেচনা করা হয়? জ্বি, আপনি ঠিকই পড়েছেন। অথচ ওজন কমানোর জন্যে আপনি হয়তো না জেনেই দারুণ এই ফলটি খাদ্যাভাস থেকে বাদ দিয়ে রেখেছেন। কলাতে থাকা দারুণ পুষ্টি গুণাগুণ শরীরে ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। পুরো পৃথিবী জুড়ে কলার চাহিদা অনেক বেশি। কারণ এই ফলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম, আঁশ, ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন-বি৬ এবং ভিটামিন-সি।

একটি পাকা কলাতে রয়েছে ৯০ ক্যালোরি যা যেকোনো ভাজাপোড়া জাতীয় খাবারের থেকে অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর। সহজলভ্য এই ফলটি সবসময় পাওয়া যায় বলেই হয়তো আমরা তার কদর বুঝতে পারি না। অথচ প্রতিদিন একটিমাত্র কলা খাওয়ার ফলে নিশ্চিত হতে পারে শারীরিক সুস্থতা। জেনে নিন কলা খাওয়ার অজানা কিছু উপকারিতা।

অ্যাথলেটিক কার্যক্রমে উন্নতি আনবে কলা

শরীরচর্চা ও ভারি ধরণের অ্যাথলেটিক কার্যক্রমের ক্ষেত্রে অনেক বেশী শারীরিক শক্তির প্রয়োজন হয়। কলা ক্ষেত্রে শরীরের পেশীতে শক্তি প্রদান করে থাকে। কারণ কলাতে রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট সমূহ এবং অন্যান্য পুষ্টিগুণ। এই সকল গুণাগুণ বাজারের স্পোর্টস ড্রিঙ্কে পাওয়া সম্ভব নয়।

দারুণ ডায়েট-ফ্রেন্ডলি ফল

কলাতে রয়েছে বিশেষ ধরণের রেসিস্ট্যান্ট স্টার্চ (Resistant Starch). এটা এমন ধরণের শর্করা যা অনেক লম্বা সময় ধরে পেট ভরা রাখতে সাহায্য করে। যে কারণে সান্ধ্যকালীন নাস্তা হিসেবে কলা সবচাইতে উপকারী এই খাদ্য উপাদান।

বহু ব্যবহারের ফল কলা

পাকা কলা এমনি খাওয়ার পাশাপাশি কলা দিয়ে ফ্রেশ স্মুদি, যেকোন ধরণের মিষ্টি ধরণের খাবার, কেক কিংবা পিঠাও তৈরি করা যায়। যে কারণে, একটিমাত্র ফল খাওয়া যায় নিজের পছন্দমতো ভিন্ন ভিন্ন উপায়ে।

কলাতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন-সি

ভিটামিন-সি হলো শরীরের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। যা শরীরকে ফ্রি-র‍্যাডিকেল এবং যে কোন ধরণের প্রদাহ থেকে রক্ষা করে। একটিমাত্র কলা খাওয়ার ফলেই আপনার শরীর তার প্রয়োজনীয় ভিটামিন-সি পেয়ে যাবে খুব সহজে।

হতাশা কাটাবে কলা

আপনি কি জানেন, মানসিক চাপ, অশান্তি এবং হতাশা দূর করতে কলা দারুণ কার্যকরী একটি ফল? কলাতে থাকে উচ্চমাত্রায় ট্রিপটোফ্যান যা মানব শরীরে প্রবেশের পর সেরোটোনিনে পরিবর্তিত হয়ে যায়। সেরোটোনিন মানসিক চাপ ও অন্যান্য সমস্যা কমাতে সাহায্য করে থাকে। তাই যখনই কাজের চাপ দেখা দেবে বা মানসিক অশান্তিতে ভুগবেন, চমৎকার একতি পাকা কলে খেয়ে ফেলবেন।

পেটফাঁপা কমাবে কলা

সাধারণ একটি শারীরিক সমস্যা হলো পেটফাঁপা দেখা দেওয়া। পেটের এই সাধারণ সমস্যা দেখা দিলে একটি পাকা কলা খেয়ে নিতে হবে। সহজপাচ্য কলা পেটে তৈরি হওয়া গ্যাসকে কমিয়ে ফেলে দ্রুত। যার ফলে পেটের ফাঁপা ভাব ও গ্যাসভাব কমে যায় অনেকটা।

খাদ্য পরিপাকে সাহায্য করে

বেশ কিছুদিন ধরে যদি খাদ্য পরিপাক জনিত এবং কোষ্ঠ্যকাঠিন্য জনিত সমস্যা দেখা দেয়, তবে নিয়মিত একটি করে পাকা কলা খাওয়া শুরু করতে হবে। কলাতে থাকা দ্রবণীয় আঁশ খাদ্য পরিপাক করতে এবং কোষ্ঠ্যকাঠিন্যের সমস্যাকে কমাতে সাহায্য করে থাকে।

উচ্চরক্ত চাপ কমায় কলা

কলাতে থাকা উচ্চমাত্রার পটাসিয়াম এবং স্বল্প মাত্রার সোডিয়াম রক্তচাপ নিয়ন্ত্রন করে থাকে। এছাড়া উচ্চ রক্তচাপ কমাতেও সাহায্য করে থাকে। যে কারণে নিয়মিত কলা গ্রহনে হৃদযন্ত্রের সমস্যা, হার্ট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে যায় অনেকাংশে।

About myadmin

Check Also

বিনা পয়সার যে খাবারটি আজীবন যৌবন ধরে রাখে ও নতুন চুল গজায়

সমস্যা সমাধান ও রোগ নিরাময়ের জন্য আমরা কত কিনা করি। চিকিৎসা করতে গিয়ে বেশ ক্ষতি …