Home / জাতীয় / নিহত ছাত্রদল নেতার শরীরে অসংখ্য ক্ষত, হাত পায়ের আঙ্গুলে নেই কোন নখ

নিহত ছাত্রদল নেতার শরীরে অসংখ্য ক্ষত, হাত পায়ের আঙ্গুলে নেই কোন নখ

গতকাল ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে মারা গেছেন তেজগাঁও থানা সভাপতি ও ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জাকির হোসেন মিলন। তাকে গত ৬ই মার্চ প্রেসক্লাবের সামনে থেকে আটক করে রমনা পুলিশ। শাহবাগ থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। মামলার ধারা নং ১৪৭, ১৪৮, ১৪৯, ৩৩২ ও ৩৩৩।

তাকে আদালতে হাজির করলে আদালত তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ৮, ৯ ও ১০ মার্চ রিমান্ড শেষ আবারও আদালতে হাজির করলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। কিন্তু কারাগারে পাঠানোর একদিন পরই মারা যান মিলন।

এদিকে, তার মৃত্যু কিছুতেই মেনে নিতে পারছেনা পরিবার। তাদের দাবি, রিমান্ডে অমানুষিক নির্যাতনের ফলেই মৃত্যু হয়েছে মিলনের। প্রিয় পুত্রের মরদেহ দেখে শোকে পাগল্প্রায় হয়ে আছেন মিলনের মা। কথা বলার ভাষাটুকুও হারিয়ে ফেলেছেন তিনি।

ছাত্রদল নেতা মিলনের দুলাভাই রাশেদুল হক বলেন, সুস্থ মিলনকে ধরে নিয়ে গেলো, সেই মিলন তিনদিন পুলিশ রিমান্ডে ছিলো। আজকে আমাদের জানানো হলো মিলনের লাশ ঢাকা মেডিকেলের মর্গে আছে নিয়ে যান।

কোন মিলনকে নিয়ে আসবো?
যে মিলনকে ধরে নিয়ে গিয়েছিলো তাঁর শরীরে তো কোন দাগ ছিলো না, মর্গে নিথর শুয়ে থাকা এই মিলনের শরীরে এত দাগ কিভাবে এলো?

মর্গে নিথর শুয়ে থাকা মিলনের হাত-পায়ের ২০টি আঙ্গুলের একটিতেও নখ অবশিষ্ট নাই।

এই দেশের মিডিয়া আজো ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময়কার পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর টর্চার সেলের লোমহর্ষক ঘটনা নিয়ে সিনেমা বানায়। কিন্তু এই দেশের মিডিয়া আপনাকে জানায় না, মুক্তিযুদ্ধের ৪৬ বছর পরেও এই দেশের বুকে হানাদার বাহিনীর চাইতেও ভয়ংকর বাহিনীর জন্ম হয়েছে।

About myadmin

Check Also

জাতীয় নির্বাচন, যা বললেন সিইসি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কোনো অনিয়ম হবে না, এমন নিশ্চয়তা দেয়া যাবে না বলে জানিয়েছেন …