Home / Uncategorized / পানির নিচে খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়াম

পানির নিচে খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়াম









কয়েকদিনের প্রবল বৃষ্টিতে খেলার অযোগ্য হয়ে পড়েছে ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়াম। এখন পর্যন্ত মাঠের ইনডোর শুকনো থাকলেও আউটডোর পানির নিচে তলিয়ে আছে।

ফতুল্লা স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক ম্যাচ থেকে শুরু করে সব ধরনের ক্রিকেট খেলা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু বর্ষা মৌসুম আসলেই পানিতে ডুবতে থাকে স্টেডিয়ামটি। গত বছর বর্ষাকালে মাঠের ইনডোর পর্যন্ত পানিতে তলিয়ে গিয়েছিল।

এ বছর এখন পর্যন্ত ইনডোর শুকনো থাকলেও বাইরে চলাচলের সব পথ তলিয়ে গিয়ে স্টেডিয়ামটি জলাবদ্ধ হয়ে পড়েছে। স্টেডিয়াম ঘুরে জলাবদ্ধতার এ দৃশ্য দেখা গেছে।









স্টেডিয়ামের গেটের পরে আউটডোর মাঠ ও চলাচলের পথ পানিতে তলিয়ে আছে। সেই সাথে ভেতরের মাঠের পাশে কাদা দেখা গেছে। যার ফলে খেলাধুলা ও প্রশিক্ষণ সব কিছুই এখন বন্ধ রয়েছে।

ফয়সাল নামে স্থানীয় এক ক্রিকেটার বলেন, ‘প্রতিদিন বিকেলে বন্ধুদের নিয়ে স্টেডিয়ামের পাশের খালি জায়গায় ক্রিকেট খেলতাম। কিন্তু এখন তো জলাবদ্ধতার কারণে খেলাধুলা সম্ভব হচ্ছে না। প্রতি বর্ষা মৌসুম আসলেই এসব জায়গা তলিয়ে যায়। গত বছর তো স্টেডিয়ামের ভেতরের মাঠ তালিয়ে গিয়েছিল।’









আরেক ক্রিকেটপ্রেমী রাসেল বলেন, ‘দেশের ক্রিকেট অনেক এগিয়েছে। কিন্তু একটি আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে এমন জলাবদ্ধতা মেনে নেওয়া যায় না। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের তদারকি থাকা দরকার।’

খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে ২০০৬ সালে প্রথমবারের মতো টেস্ট ক্রিকেট আয়োজন করা হয়। এ ছাড়া এখানে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলাও অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০১১ সালের বিশ্বকাপ ক্রিকেটের একটি প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ এখানে অনুষ্ঠিত হয়। আর ২০০৪ সালে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে এই স্টেডিয়াম ব্যবহৃত হয়েছিল।









About myadmin

Check Also

রোজার নিয়ত ও ইফতারের দোয়া

রোজা বা সিয়াম ইসলাম ধর্মের পাঁচটি মূল ভিত্তির তৃতীয়। সূর্য উদয় থেকে অস্ত পর্যন্ত সকল …