Home / জাতীয় / বড়দের কেউ কেউ বিএনপি ছেড়ে যেতে পারেন: ফখরুল

বড়দের কেউ কেউ বিএনপি ছেড়ে যেতে পারেন: ফখরুল

বিএনপির বড়দের কেউ কেউ দল ছেড়ে যেতে পারেন, তবে নেতাকর্মীরা কেউ দল ছাড়েন না বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, ‘খেয়াল করে দেখবেন, আপনি যতই এদিক-ওদিক টানাটানি করেন, আমাদের সাধারণ নেতাকর্মীরা বিএনপি ছেড়ে যায় না। বড়রা কেউ কেউ দল ছেড়ে যেতে পারেন, নেতাকর্মীরা কেউ যান না।’









সোমবার (২৬ মার্চ) সন্ধ্যায় ভাসানী মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা (জাসাস)।









মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘এত নির্যাতন-হত্যার পরও আমরা নির্বাচনে যেতে চাই। একটা লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড পেলে সেই নির্বাচনে আমরা অংশগ্রহণ করতে চাই। কিন্তু সেই মুহূর্তে সরকার আপ্রাণ চেষ্টা করছে বিএনপিকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে, আমরা যখন বলছি সঠিক লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করতে হবে। যিনি গণতন্ত্রের জন্য লড়াই- সংগ্রাম করছেন, তাকে আপনারা জেলে ঢোকালেন। এর অর্থ কী? যেন আমরা নির্বাচনে না আসি। বেগম খালেদা জিয়াকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে হবে, তারেক রহমানকে দূরে রাখতে হবে।’
তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় জেলে নিয়ে বিএনপিকে ভাঙার চেষ্টা করেছিল সরকার। কিন্তু সে চেষ্টায় সফল হয়নি সরকার। এখন দুঃসময় চলছে। এটা বিএনপির জন্য নয়, গোটা জাতির জন্য দুঃসময়। সারাদেশে আমাদের নেতাকর্মীদের মামলার সংখ্যা ৭৮ হাজার। আসামির সংখ্যা ১৮ লাখের বেশি। এর অর্থ কী? এই ১৮ লাখ নেতাকর্মী যেন নির্বাচনে কাজ করতে না পারে।’









বিএনপির চলমান আন্দোলনকে বাঁচা-মরার সংগ্রাম বলে মন্তব্য করে দলটির মহাসচিব বলেন, ‘আমাদের চলমান ও সামনের আন্দোলন বিএনপির বাঁচা-মরার সংগ্রাম। আমরা সবাই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে এ সংগ্রাম চালিয়ে যাবো।’









বিএনপির অতীতের যে কোনও সময়ের চেয়ে ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বিএনপি একটা ফিনিক্স পাখির মতো। ধ্বংস হয়ে যায়, আগুনে পুঁড়ে ছাই-ভস্ম হয়ে যায়, সেখানে থেকে একটা পাখি ওড়ে; সেই পাখি হচ্ছে বিএনপি।’ এই দলের রাজনীতি হচ্ছে জনগণের রাজনীতি, এটি বাংলাদেশের মানুষের দল বলেও মন্তব্য করেন তিনি।









জাসাসের সভাপতি অধ্যাপক মামুন আহমেদের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন সহসভাপতি বাবুল আহমেদ, মীর সানাউল হক, জাসাস সাধারণ সম্পাদক হেলাল খান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব জাকির হোসেন রোকন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আশরাফউদ্দিন আহমেদ উজ্জ্বল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য গাজী মাজহারুল আনোয়ার, তার মেয়ে কণ্ঠশিল্পী দিথি আনোয়ার, কণ্ঠশিল্পী রিজিয়া পারভিন, হাসান চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

About myadmin

Check Also

এবার দুই বাসের ভয়ঙ্কর প্রতিযোগিতা, বুকের ওপর দিয়েই গেল বাস!

রাজধানীর শ্যামপুর থেকে মোটরসাইকেলে গুলিস্তান যাচ্ছিলেন নাজিম উদ্দিন। ধোলাইপাড় দিয়ে মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে উঠতেই …