Home / ফটো গ্যালারি / ১০ টি মিষ্টি কাজ যা সকল সুখি দম্পতি বিছানায় যাবার আগে করে থাকে, #৭নাম্বার টি দারুন

১০ টি মিষ্টি কাজ যা সকল সুখি দম্পতি বিছানায় যাবার আগে করে থাকে, #৭নাম্বার টি দারুন

এক ‘সুখী দম্পতি’ কিভাবে গড়ে ওঠে ? যদিও এই ব্যস্ত সময়সূচীর মধ্যে প্রত্যেকেরই একে অপরের প্রতি উৎসর্গের জন্য পুরো দিন আছে যারা এখনো সুখী ভাবে বাস করে। এবং এটা কিভাবে সম্ভব?

যেহেতু সুখী দম্পতিরা ‘পরিপক্ক’ এবং তারা তাদের মধ্যে কয়েকটি অভ্যাস একই। দিনের বেলায় তারা যা করে এবং সন্ধ্যায় তারা কি করে বা রাতের মধ্যে বিছানায় যাবার সময় কি করে তা গুরুত্বপূর্ণ। যদি আপনি মনে করেন যে আপনার রাতের কার্যকলাপ নিস্তেজ হয়ে গেছে তাহলে আপনি কিছু দম্পতিরা ঘুমানোর আগে এবং সুখী থাকতে কি করে তা মনোযোগ দিয়ে দেখুন।

সম্পর্কের পরামর্শদাতা কেক ইয়াং বলেন, “দম্পতিরা একে অপরের সাথে অনুভূতি ও উদ্বেগের বিষয়ে যত সক্রিয় দেখায় সেটায় সুস্থ সম্পর্কযুক্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে যা একটি ভাল যৌন জীবনের শুরু করে।”

পাশাপাশি সেখানে এই দম্পতিরা একটি সঠিক প্রেম-জীবনের ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য অনুসরণ করেতে পাড়ে । সুতরাং, আসুন সেই গোপন রহস্যগুলি জানুন !

#১ কাজের কথা ভুলে যাও

কেন না কেন ? এটা শোওয়ার সময়, কাজ করার সময় না। সুতরাং, কাজের পাশাপাশি সম্পর্কগুলিরও সময় প্রয়োজন। আগামীকাল পর্যন্ত সমস্ত কাজের চাপ কিভাবে সরাবেন এবং আপনি কিভাবে আপনার সঙ্গীর সাথে সংযুক্ত হবেন তা নিয়ে ভাবুন।

#২ একে অপরের সমস্যা সমাধান করুন

আপনার সঙ্গীর সাথে বিছানায় যেতে আপনার কদর্য এবং বিরক্ত অনুভূতি সরিয়ে রাখতে হবে। ভালো দম্পতিরা রাগ করে বিছানায় যায় না। যদি আপনি বিছানায় যাওয়ার আগে আপনার সঙ্গীর সাথে একটি আর্গুমেন্টের মধ্যে জড়িয়েছেন, তবে এটি যথেষ্ট সংশোধন করার চেষ্টা করুন যেখানে আপনি ঘুম থেকে উঠে সেটা নিয়ে আর কিছু ভাবতে না হয়।

#৩ আপনার ফোনকে সরিয়ে রাখুন

আপনার সঙ্গীর সাথে আপনার গুণমান সময় কাটানোর থেকে আপনার ফোনে কথা বলা বেশি গুরুত্বপূর্ণ নয়, বরং এটি আপনার ঘুম নষ্ট করতে পাড়ে। রাতে, আপনার শরীরের অক্সিনট্যানিন উৎপন্ন করে যা আপনাকে ঘুমোতে সাহায্য করে এবং আপনার ফোন থেকে আলো সেই হরমোন উৎপাদন দমন করতে পারে। সুতরাং এটি সুইচ অফ করুন!

#৪ একই সময়ে শুতে যান

একই সময়ে বিছানায় শুতে যাওয়া আপনার অংশীদারের সাথে আপনার সম্পর্কের উষ্ণতা এবং অন্তরঙ্গতা উন্নতি করতে সাহায্য করতে পারে। এবং আসুন সৎ হন, আপনি যাকে ভালবাসেন তার সাথে ঘুমানো এক আশ্চর্যজনক অনুভূতি দেয় ।

#৫ একে অপরের প্রশংসা করুন

আপনার ভালোবাসার প্রতি যত্ন বজায় থাকার জন্যে তার সাথে ঘুমানো দরকার। বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দেন সাধারণত, দম্পতিরা একে অপরের তিনটি জিনিস নিয়ে দিনের শেষে বিছানায় থাকা অবস্থায় কথা বলুন, যা আপনার সম্পর্কে প্রশংসা করে।

#৬ একটি রুটিন অনুসরণ করুন

একসঙ্গে শোওয়ার রুটিন অনুসরণ করলে আপনার সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ হয় এবং এটি আপনাদের দুইজনের মধ্যে বিশ্বাস বৃদ্ধি করতে সাহায্য করতে পারে। এছাড়াও, একটি রুটিন আপনার মস্তিষ্ককে ঘুমের জন্য প্রস্তুত করতে সহায়তা করবে কারণ এটি জানাবে যে ঘুমের সময় ঠিক কখন আছে।

#৭ ঘনিষ্ঠ কথোপকথন

কিছু দম্পতি তাদের ভালবাসার সম্পর্ক নিয়ে কথা বলা পছন্দ করে, তাদের অন্তরে যখন অন্তরঙ্গতা, তাদের অনুভূতি, তাদের আকাঙ্ক্ষা এবং একে অপরের প্রতি তাদের ভালবাসা থাকে। এইটি একটি ভাল লক্ষণ তাদের সম্পর্কে।

#৮ দম্পতিদের আশ্লেষে জড়ানো

ওহ, আপনার সঙ্গীর সঙ্গে জড়িয়ে ধরার আনন্দ, আপনার সমস্ত যন্ত্রণার অনুভূতি দূর করে। শুধু চিন্তা করুন আর চাদরের মধ্যে ঢুকে পড়ুন ।

#৯ ঘুমনোর আগে তর্ক করবেন না

তারা বলে, ‘রাগ করে বিছানায় যাবেন না, !’ আপনারা উভয়ের ঘুম এতে কঠিন হবে এবং আপনারা আগামীকাল যখন জেগে উঠবেন তখন আপনাদের একটি ভয়াবহ মেজাজ থাকবে। এর সঙ্গে কোন বিজয়ী হওয়ার সম্পর্ক নেই!

#১০ শুতে যাওয়ার আগে মদ্য পান বা ধূমপান করবেন না

অ্যালকোহল এবং নিকোটিন অনিদ্রার কারন । এবং আমি নিশ্চিত যে কোন দম্পতি তাদের শব্দ নষ্ট করতে চান না এবং আপনার শয়নকালের আগে এসবের কোন প্রয়োজন নেই।

এই ছিল আজকের মতো!

নোট: উপরে চিত্রগুলি শুধুমাত্র চিত্রণ উদ্দেশ্যের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে।

নীচের অংশে লাইক, শেয়ার করুন এবং মন্তব্য করুন।

About admin

Check Also

সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় করা বলিউড এর ১০টি ছবি

অনেকেই ভালবাসেন নিজের পছন্দের তারকাদের, কখনোও বা আইডল (ভক্তির পাত্র) হিসেবেও স্থান দিয়ে দায় । …