Home / জাতীয় / কোমায় মা, চিরনিদ্রায় বাবা; দিশেহারা ক্যাপ্টেন আবিদের ছেলে তামজিদ মাহি যার আশ্রয়ে

কোমায় মা, চিরনিদ্রায় বাবা; দিশেহারা ক্যাপ্টেন আবিদের ছেলে তামজিদ মাহি যার আশ্রয়ে

শোকে পাথর হয়ে গেছে নিহত ক্যাপ্টেন আবিদ সুলতানের ছেলে তামজিদ মাহি। বাবার মৃত্যুর খবর পাওয়ার পরপরই মা আফসানা তপির কোমায় চলে যাওয়া মেনে নিতে পারছে না কিশোর তামজিদ মাহি।

বাবার মৃত্যুর পরপরই তার মা দুইবার স্ট্রোক করে এখন লাইফ সাপোর্টে বেঁচে আছেন। বাবার জীবন নিভে যাওয়ার পর মায়ের সঙ্গীণ অবস্থা দেখে কিশোর তামজিদ মাহি নিস্তব্ধ হয়ে গেছে। মাহি কারো সঙ্গে কথা বলছে না।

এদিকে আজ সোমবার সন্ধ্যায় বনানীর কবরস্থানে যখন ক্যাপ্টেন আবিদ সুলতানকে কবর দেয়া হয় তখন মাহি তার একজন আত্মীয়ের হাত শক্ত করে ধরে ছিল। বনানীর কবরস্থানে বাবার দাফনের পর তামজিদ মাহি তার চাচার সঙ্গে মিরপুর চলে যায়। এই সময়ের মধ্যে সে একবারও কথা বলেনি। বাবাকে হারানো আর মাকে ফিরে পাবে কিনা, এই শোকে কিশোর তামজিদ মাহি পাথর বনে গেছে।

গতকাল রোববার ভোরবেলায় নিহত ক্যাপ্টেন আবিদ সুলতানের স্ত্রী আফসানা তপির মাথার যন্ত্রণা শুরু হয়। তাৎক্ষণিকভাবে চিকিৎসার জন্য উত্তরার বাসা থেকে আফসানা তপিকে ধানমন্ডির বাংলাদেশ মেডিকেলে নেয়া হয়।

হাসপাতাল থেকে জানানো হয়, আফসানা তপির মাথায় স্ট্রোক হয়েছে। তারপর বাংলাদেশ মেডিকেল থেকে আফসানা তপিকে আগারগাঁওয়ের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরো সায়েন্স অ্যান্ড হাসপাতালে নেয়া হলে তাৎক্ষণিকভাবে অপারেশন করা হয়। অপারেশনের পর অনেকটা সুস্থ হয়ে ওঠেন আফসানা তপি।

এরপর রোববার দিবাগত রাত ১টার সময় আফসানা তপির আবারো মাথায় স্ট্রোক হয়। এরপর তাকে তাৎক্ষণিকভাবে আবারও অপারেশন করা হয়। অপারেশনের পর থেকে আফসানা তপি লাইফ সাপোর্টে রয়েছেন।

About myadmin

Check Also

আপনার আদরের ছোট্ট সন্তানটি কেমন থাকছে কাজের লোকের কাছে?

অনেক কর্মরত দম্পতি নিজ বাসায় বলতে গেলে কাজের লোকের ওপরই নির্ভরশীল। আপনার আদরের ছোট্ট সন্তানটি …